রবিবার, ৫ ডিসেম্বর ২০২১, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ , ২৮ রবিউস সানি ১৪৪৩

দেশ

সম্প্রীতি বিনির্মাণ হয় মানবিকতায় : আ স ম রব

নিউজজি প্রতিবেদক ১৮ অক্টোবর, ২০২১, ১৮:৫৫:২৫

269
  • সম্প্রীতি বিনির্মাণ হয় মানবিকতায়: আ স ম রব

ঢাকা: পূজামণ্ডপে হামলা, সহিংসতা ও নৈরাজ্যের তীব্র নিন্দা জানিয়ে এবং জাতির নৈতিক জাগরণে ৫ দফা উত্থাপন করে স্বাধীনতার পতাকা উত্তোলক ও জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রব গণমাধ্যমে নিম্নোক্ত বিবৃতি প্রদান করেছেন।

মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে অর্জিত রাষ্ট্রে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ধারাবাহিকভাবে বিনষ্ট হচ্ছে। এটা আমাদের জাতির জন্য খুবই বেদনাদায়ক এবং লজ্জাজনক। এটা মুক্তিযুদ্ধের গৌরবকে ক্ষত-বিক্ষত করে দিয়েছে।

এই আত্মবিনাশী ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে ৫ দফা দাবি উত্থাপন করছি-

(১) সংখ্যালঘুদের ওপর সহিংসতা, মন্দির ভাঙচুর, দোকানপাট লুটের সাথে জড়িত অপরাধীদের চিহ্নিত ও গ্রেফতার করে অবশ্যই বিচারের আওতায় আনতে হবে।

(২) সাম্প্রদায়িক সহিংসতার উৎস, কারণ এবং প্রতিকারের উপায় নির্ধারণে ‘বিচার বিভাগীয় কমিশন’ গঠন করতে হবে।

(৩) পূজামণ্ডপের সুরক্ষার প্রশ্নে পুলিশ ও প্রশাসনের গাফিলতি, অসহযোগিতা ও সময় ক্ষেপণের কৌশলে জড়িতদের চিহ্নিত করে শাস্তির আওতায় আনতে হবে।

(৪) নিরস্ত্র প্রতিবাদকারীদের উপর পুলিশ-কর্তৃক গুলিবর্ষণ ও হত্যার দায়দায়িত্ব নির্ধারণের জন্য তদন্ত কমিটি গঠন করতে হবে।

(৫) সাম্প্রদায়িক সহিংসতা যেন ভূ-আঞ্চলিক পরাশক্তির রাজনৈতিক মেরুকরণের দাবার গুটি বা পরাশক্তির নির্মম খেলায় পরিণত হতে না পারে, সেজন্য জাতীয় জাগরণের উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে।

তিনি বলেন, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিতে সৌহার্দ্যপূর্ণ সমাজ বিনির্মাণ হয় মানবিকতায়, সশস্ত্র বল প্রয়োগে নয়। আমরা মুক্তিযুদ্ধের রাষ্ট্রীয় চেতনা থেকে বিচ্যুত হয়ে শুধু ক্ষমতাকেন্দ্রিক অপরাজনীতি, অনৈতিক রাজনীতি, জিজ্ঞাসামূলক রাজনীতি বিস্তার করার মধ্য দিয়ে জাতির মনঃস্তত্ত্বে যে অমানবিক অন্যায্য সংস্কৃতি গ্রথিত করে দিয়েছি, তারই নির্যাস আজকের এই পরিণতি।

তার ভাষ্য, বল প্রয়োগ করে রাজনীতিকে নিয়ন্ত্রণ করা, জনগণকে ভয়ে সন্ত্রস্ত রাখা, ক্ষমতাকে দীর্ঘস্থায়ী করা এবং প্রতিপক্ষকে শত্রু আখ্যায়িত করে বিনা বিচারে হত্যা করা, গায়েবি মামলায় কারান্তরীণ করা, মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন করাসহ সকল অন্যায্যতাকে জোর করে ন্যায্যতা প্রদান করায় জাতীয় মনন থেকে মানবিকতা সহিষ্ণুতা, ধর্মীয় সম্প্রীতি, পারস্পরিক শ্রদ্ধা এবং সহমর্মিতাকে আমরা বিদায় করে দিয়েছি।  

তার ভাষ্য, আমাদের এই ধ্বংসপ্রাপ্ত মূল্যবোধের এবং জাতীয় অনৈক্যের ফাটলে ভূ-আঞ্চলিক কোনো পরাশক্তি বারুদ রেখে আগুন ধরিয়ে আমাদের জাতির অস্তিত্ব বিপন্ন করে দিতে পারে, এই সামান্য বিবেচনাও আমাদের কাছে প্রাধান্য পাচ্ছে না। আমাদের জরুরি রাজনৈতিক কর্তব্য হচ্ছে, জনগণের কাছে রাষ্ট্রীয় মালিকানা হস্তান্তর করা। গণতান্ত্রিক, নৈতিক ও মানবিক সংস্কৃতিকে পুনরুজ্জীবিত করা। 

তিনি বলেন, স্বাধীনতার ৫০ বছরে উপনীত হওয়ার এই ক্ষণে আমাদেরকে আত্মসমীক্ষার মাধ্যমে স্বাধীনতার ঘোষণাপত্রের রাজনৈতিক অঙ্গীকার ‘সাম্য’, ‘মানবিক মর্যাদা’ ও ‘সামাজিক সুবিচার’ উপযোগী রাষ্ট্র বিনির্মাণে নতুন বোঝাপড়ায় উপনীত হওয়ার জন্য সকল রাজনৈতিক দল, মহল, গোষ্ঠী, পেশাজীবি ও বুদ্ধিজীবী সম্প্রদায়ের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানাচ্ছি।

নিউজজি/ওএফবি

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন