রবিবার, ৫ ডিসেম্বর ২০২১, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ , ২৮ রবিউস সানি ১৪৪৩

দেশ

মৌলভীবাজারে খাসিয়া সম্প্রদায়ের ঐতিহ্যবাহী বর্ষবরণ উৎসব

শ্রীমঙ্গল (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি ২৫ নভেম্বর, ২০২১, ১২:৩৭:৫১

149
  • ছবি : নিউজজি

মৌলভীবাজার: সুন্দরভাবে একটি বছর কাঠানোর জন্য ঈশ্বরের কাছে কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন এবং নতুন ফসল ঈশ্বরের নামে উৎসর্গের মধ্যদিয়ে মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) পুরান বছরকে বিদায় জানায় এবং বুধবার (২৪ নভেম্বর) তাদের নতুন বছর শুরু হয়।

বুধবার (২৪ নভেম্বর) বর্ষবরণ করতে মৌলভীবাজারে খাসিয়া সম্প্রদায় নানান অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন। এ উৎসবের নাম তাদের ভাষায় ‘খাসি সেঙ কুটস্নেম’। বাংলায় আদিবাসী খাসিয়া সম্প্রদায়ের ঐতিহ্যবাহী বর্ষ বিদায় ও বর্ষবরণ অনুষ্ঠান।

ইংরেজি বছরের ২৩ নভেম্বর জেলার কমলগঞ্জ উপজেলার মাগুরছড়া খেলার মাঠে এ উৎসবের আয়োজন করা হয়। করোনার তান্ডবের জন্য গত দুই বছর তা বন্ধ ছিলো। এ বছর স্বাস্থ্যবিধি মেনে আয়োজন করা হয় বলে জানান আয়োজকরা।

সকাল ১০ টায় ধর্মীয় অনুষ্ঠানাদির মধ্যদিয়ে এটি শুরু হলেও মূল পর্ব শুরু হয় বিকলে ৪টায়। মাগুরছড়ার ঐতিহ্যবাহী ফুটবল মাঠের আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে সিলেট বিভাগের প্রায় সকল খাসিয়া পুঞ্জির অধিবাসীরা মিলিত হন আনন্দযজ্ঞে।

উৎসব প্রাঙ্গণের একপ্রান্তে বাঁশের খুঁটির উপর প্রাকৃতিক পরিবেশে নারিকেল গাছের পাতার ছাউনী দিয়ে আলোচনা সভার মঞ্চ তৈরি করা হয়। উৎসবকে ঘিরে মেলার প্রত্যেকটি স্টলের ছাউনী দেয়া হয় কলাগাছের পাতা দিয়ে।  খাসিয়া সম্প্রদায়ের ছেলে মেয়েরা সাজে বর্ণিল সাজে।

লাউয়াছড়া খাসিয়া পুঞ্জি প্রধান ফিলাপত্মী জানান, মৌলভীবাজারের খাসিয়ারা মূলত সিনতেং গোত্রভুক্ত জাতি। আমাদের জীবিকার প্রধান উৎস পান, সুপারী ও লেবু চাষ। ভাত ও মাছ আমাদের প্রধান খাদ্য।

বর্ষপুঞ্জি অনুযায়ী এবছর ১৫৭তম বর্ষকে বিদায় দিয়ে ও ১৫৮তম বর্ষকে তারা বরণ করে নিয়েছেন।

তিনি জানান, ব্রিটিশ শাসন আমল থেকে ভারতের মেঘালয় রাজ্যে ২৩ নভেম্বর খাসি বর্ষবিদায় ‘খাসি সেঙ কুটস্নেম’ পালন করা হয়। বুধবার ২৪ নভেম্বর থেকে শুরু হয়েছে  খাসি বর্ষবরণ ও বছর গণনা।

নিউজজি/ এসআই

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন