বৃহস্পতিবার, ৪ মার্চ ২০২১, ১৯ ফাল্গুন ১৪২৭ , ২০ রজব ১৪৪২

দেশ

নারী পোশাক শ্রমিকের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার

রাজবাড়ী প্রতিনিধি ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ১৭:২৮:০৮

  • প্রতীকী ছবি

রাজবাড়ী: কালুখালী উপজেলার মাঝবাড়ি ইউনিয়নের শ্রীপুর গ্রামের কাশমিয়া বিলের নির্জন স্থান থেকে নাজমা বেগম (৩০) নামে এক গার্মেন্টস শ্রমিকের মুখ, কান ও গলা কাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে কালুখালি থানা পুলিশ।

খুন হওয়া নাজমা একই ইউনিয়নের কুষ্টিয়াডাঙ্গী গ্রামের মানিক শেখের মেয়ে। গতকাল রোববার খুন হওয়া নাজমা বেগমের ছেলে রঞ্জু সাংবাদিকদের জানান, তিন দিন আগে তার মা পাংশার বাগদুলি এলাকায় বোনের বাড়িতে বেড়াতে যান।

গতকাল রোববার বিকেলে বাগদুলি থেকে তার ফিরে আসার কথা ছিলো। কিন্তু রাতে সে বাড়ি ফেরেনি। সকালে তারা কোমরপুরের কাশমিয়ার বিলের মধ্যে তার মায়ের খুনের খবর জানতে পারে।

নিহতের পুত্রবধূ সাবিনা খাতুন জানায়, তার শাশুড়ি ঢাকার একটি গার্মেন্টস ফাক্টরিতে শ্রমিক হিসেবে কাজ করতো। গত সপ্তাহে সে ১০ দিনের ছুটিতে বাড়ি এসেছে।

তবে স্থানীয়দের অভিযোগ ২০১৯ সালের জুন মাসে একই স্থানে কালুখালির মোহনপুরের ভ্যানচালক রহিম খুন হয়েছিল। আবার একইভাবে খুনিরা নাজমা বেগম ওরফে মনজুয়ারাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে। ফলে বোঝা যায় আগের সব খুনের সঙ্গে এই খুনের যথেষ্ট সম্পৃক্ততা রয়েছে। এছাড়াও এই ইউনিয়নে আরো এক যুবকের হত্যা করা হয়।

তবে এলাকাবাসীর তথ্য মতে, রবিউল হত্যা মামলার অন্যতম আসামি ইউসুফ মেম্বার ও তার দুই ছেলে রহিম ও রবিউল গা ঢাকা দিয়েছে। তাদেরকে আজকে আর এলাকায় দেখা যাচ্ছে না।

কালুখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুদুর ররহমান জানান, খুনিদের গ্রেপ্তারের জোর চেষ্টা চলছে। খুনি যতোই চালাক হোক। তাকে আমরা খুঁজে বের করবই।

গার্মেন্টন্স শ্রমিক হত্যার খবর শুনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শরিফুজ্জামান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। খুনের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

নিউজজি/ এসআই

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন
copyright © 2021 newsg24.com | A G-Series Company
Developed by Creativeers