শনিবার, ৮ মে ২০২১, ২৪ বৈশাখ ১৪২৮ , ২৬ রমজান ১৪৪২

দেশ

‘মাস্ক মুখে দিলে নিঃশ্বাস বন্ধ হয়ে আসে তাই পড়ি না’

বেলকুচি (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি ২০ এপ্রিল, ২০২১, ১৮:২৪:২৬

  • ছবি : নিউজজি

সিরাজগঞ্জ: সিরাজগঞ্জের ২য় ক্ষুদ্রতম উপজেলা বেলকুচি। গত বছর করোনা হটস্পট হিসেবে আবির্ভাব হয়েছিলো জনবহুল এই অঞ্চলটি। তাঁতশিল্প ও চরাঞ্চল পরিবেষ্টিত এলাকাতে জনসচেতনতার মান নিম্নমুখী।

মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) সর্বাত্মক লকডাউনের ৭ম দিনে বেলকুচির চালা বাসস্ট্যান্ড, মুকুন্দগাঁতি বাজারসহ বিভিন্ন স্থানে সরেজমিনে দেখা যায় স্বাস্থ্যবিধির বেহাল অবস্থা। মাস্ক ব্যবহারে ও রয়েছে চরম অনীহা। অল্পসংখ্যক মানুষের মুখে মাস্ক থাকলেও সেটা সঠিকভাবে ব্যবহৃত হচ্ছে না কেউ কেউ গলায় ঝুলিয়ে রাখছে মাস্ক। প্রশাসনের নজরদারি ও জরিমানা উপেক্ষা করে মানুষ নানা ইস্যুতে বাইরে চলাফেরা করছে।

মাস্ক না পড়া সম্পর্কে বেলকুচির বওড়া গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল কাদিরকে জিজ্ঞেস করলে তিনি বলেন, মাস্ক ব্যবহার করা দরকার। করোনার আকার বৃদ্ধি পাচ্ছে। আসলে মাস্ক মুখে দিলে নিঃশ্বাস বন্ধ হয়ে আসে তাই মাস্ক পড়ি না।

১৯ এপ্রিল সিরাজগঞ্জ শহিদ এম মনসুর আলী মেডিক্যাল কলেজ পিসিআর ল্যাবে ১৮৮টি নমুনা পরীক্ষায় করোনা পজিটিভ ছিল ৫৮ জন। বেলকুচিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ২ জন। মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২২৪ জন। এখন পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৬ জনের। মোট সুস্থ ২০৭ জন।

এ বিষয়ে বেলকুচি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. এ কে এম মোফাখখারুল ইসলাম জানান, দেশে করেনার ২য় ঢেউ চলছে। সংক্রমণ বাড়ছে উর্দ্ধগতিতে। যার ফলে করোনা মোকাবিলায় সর্বাত্মক লকডাউন অব্যহত রয়েছে। সুতরাং মাস্ক ব্যবহার ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার কোনো বিকল্প নেই।

 

নিউজজি/এসএম

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন
copyright © 2021 newsg24.com | A G-Series Company
Developed by Creativeers