শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৭ , ১৫ রজব ১৪৪২

জীবনযাত্রা
  >
ফ্যাশন

স্টাইলিশ দাড়ি ও তার যত্নআত্তি

নিউজজি ডেস্ক ৬ অক্টোবর , ২০১৮, ১০:৫৭:৪৫

  • স্টাইলিশ দাড়ি ও তার যত্নআত্তি

পাকিস্তানের বেলুচিস্তানের খারান এলাকায় মুসলিম পুরুষদের বিরুদ্ধে নতুন একটি নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছিল। রাখা যাবে না স্টাইলিশ দাড়ি। বিশেষ করে নবীন প্রজন্মের মুসলিমদের স্টাইলিশ দাড়ি রাখার জন্য তীব্র আপত্তি জানিয়েছে সেখানকার প্রশাসন। কী অদ্ভুত বিচারব্যবস্থা। তরুণরা কি এসব মনগড়া বিধান মেনে চলে। শুধু সেদেশে নয়, সারা পৃথিবীর প্রায় প্রতিটা দেশেই ছড়িয়ে পড়েছে দাড়ির ফ্যাশন। আজকাল ক্লিন শেভড ছেলেদের সংখ্যা কম। 

মুখের আকার এবং ব্যক্তিত্বের সাথে মিল রেখে দাড়ির সঠিক স্টাইলটি নির্বাচন করে নিতে হয়। যে স্টাইলে মুখের আকারগত ত্রুটি ঢেকে যাবে যেমন চওড়া কপাল, চোয়ালের আকার ইত্যাদি সে ধরণের স্টাইল নির্বাচন করার চেষ্টা করতে হবে। এছাড়াও চুলের স্টাইলের সাথে মিলিয়ে দাড়ির স্টাইল করা যায়, এতে করে দেখতেও বেশ ভালো লাগবে। 

৪-৫ সপ্তাহ দাড়ি রেখে নিন কোন ধরণের দাড়ির স্টাইল করবেন তার ওপর নির্ভর করে দাড়ি বড় করে নিন। আপনার দাড়ি বাড়ার ওপর নির্ভর করে অন্তত ৪-৫ সপ্তাহ সময় দিন নিজেকে। দাড়ি ভালো করে বড় হলে সহজেই যেকোনো ধরণের স্টাইল করে নিতে পারবেন। 

ট্রিম করে শেপ ঠিক রাখুন যে স্টাইলটিই নির্বাচন করুন না কেন দাড়ির আকার সঠিকভাবে ধরে রাখার জন্য ট্রিম করুন। যদি আপনার দাড়ি দ্রুত বাড়ে তবে অন্তত ১ দিন পরপর ট্রিম করে স্টাইলটি পরিষ্কারভাবে ধরে রাখবেন। 

স্টাইল পরিবর্তনের পূর্বে কিছুটা সময় নিন হুট করে দাড়ির স্টাইলে ব্যাপক পরিবর্তন ভালো লাগে না। যেমন আপনি দাড়ির স্টাইল থেকে সরাসরি ক্লিন শেভে চলে গেলে আপনাকে বেশ কিছুদিন দেখতে অদ্ভুত লাগতে পারে অন্যের চোখে। তাই নিজেকে কিছুটা সময় দিয়ে বুদ্ধি করে স্টাইল পরিবর্তন করুন।

ছবি ও তথ্য – ইন্টারনেট । 

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন
copyright © 2021 newsg24.com | A G-Series Company
Developed by Creativeers