রবিবার, ১৭ জানুয়ারি ২০২১, ৩ মাঘ ১৪২৭ , ২ জুমাদাউস সানি ১৪৪২

অন্যান্য
  >
করোনাভাইরাস

২৪ ঘণ্টায় ভারতে আক্রান্ত ৩৮,৭৭২

নিউজজি ডেস্ক ৩০ নভেম্বর , ২০২০, ১৩:২৯:৩০

  • ছবি: ইন্টারনেট

ঢাকা: ১৩ দিন পর ভারতে করোনায় দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা নামল ৪০ হাজারের নীচে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৮ হাজারের কিছু বেশি মানুষ। এর ফলে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৯৪ লাখ ছাড়িয়েছে। করোনায় আক্রান্ত মৃত্যু হয়েছে আরো ৪৪৩ জনের। তবে কমেছে অ্যাক্টিভ রোগীর সংখ্যা।

সোমবার সকালে ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে আরো ৩৮,৭৭২ জনের শরীরে মিলেছে করোনাভাইরাস। নতুন সংক্রমণে মোট আক্রান্তের সংখ্য়া হয়েছে ৯৪,৩১,৬৯১ জন। এখনও চিকিত্‍‌সাধীন রয়েছেন ৪,৪৬,৯৫২ জন। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৮৮,৪৭,৬০০ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৪৫,৩৩৩ জন। এখনও পর্যন্ত দেশে সুস্থতার হার ৯৩.৮১%। মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১,৩৭,১৩৯। গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৪৪৩ জনের। মৃতের হার ১.৪৫ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে ৮,৮৬,১৭৩ জনের কোভিড পরীক্ষা হয়েছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্যমন্ত্রক।

একদিনে সর্বাধিক করোনায় আক্রান্তের খবর এসেছে কেরালা ও মহারাষ্ট্রে। এই দুই জায়গাতেই প্রায় ৫,৫০০ জন করে কোভিডে সংক্রমিত হয়েছেন। কেরালায় নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ৫,৬৪৩ জন। দেশের মধ্যে অ্যাক্টিভ রোগীর সংখ্যার নিরিখে কেরালা রয়েছে দ্বিতীয় স্থানে। সর্বাধিক ৯২,০০০ সংখ্যক অ্যাক্টিভ রোগী নিয়ে শীর্ষে রয়েছে মহারাষ্ট্র। সংক্রমণের নিরিখে কেরালা ও মহারাষ্ট্রের পরেই রয়েছে দিল্লি। রাজধানীতে গত ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমিত হয়েছেন ৪,৯০০ জন। রবিবার দেশে ৪১ হাজার ৮১০ জন কোভিডে আক্রান্ত হয়েছিলেন। মৃত্যু হয়েছিল আরও ৪৯৬ জনের।

এ দিকে, রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের রবিবারের প্রকাশিত বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ হাজার ৩৬৭ জন। সেখানে দৈনিক সুস্থতার সংখ্যা ৩ হাজার ৪৪৫। রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪ লক্ষ ৮০ হাজার ৮১৩। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪ লক্ষ ৪৮ হাজার ০৩২ জন। গত ২২ নভেম্বর থেকেই দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা ৫০-এর নীচে নেমে এসেছিল। কিন্তু, আবার ফের ৫০-এর উপরে চলে আসছে। তবে, শুক্রবার তা আবারও ৪৬-এ নেমে এসেছিল, কিন্তু শনিবার ৫২ জনের পর রবিবার ৫৪ জনের মৃত্যু হল। সবমিলিয়ে রাজ্যে এ পর্যন্ত মারা গিয়েছেন ৮,৩৭৬ জন। রবিবার রাজ্যে অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যা আরও কমে হয়েছে ২৪,৪০৫। রাজ্যে সুস্থতার হার বেড়ে হয়েছে ৯৩.১৮ শতাংশ।

সূত্র: এই সময়।

নিউজজি/ এস দত্ত

 

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন
copyright © 2021 newsg24.com | A G-Series Company
Developed by Creativeers