শনিবার, ৮ মে ২০২১, ২৪ বৈশাখ ১৪২৮ , ২৬ রমজান ১৪৪২

অন্যান্য
  >
করোনাভাইরাস

দেশে সংক্রমণের ৮৬ ভাগই নতুন ধরনের করোনা

নিউজজি প্রতিবেদক ১০ এপ্রিল , ২০২১, ১৭:৪৮:৫৬

  • সংগৃহীত

ঢাকা: বহুরূপী করোনাভাইরাস। ধরণ বদলাচ্ছে দিনে দিনে। গবেষকরা বলছেন, দেশের ৮৬ ভাগই নতুন ধরনের করোনা। সম্প্রতি চাইল্ড হেলথ রিসার্চ ফাউন্ডেশনের গবেষণায় জানা গেছে, নতুন ধরনের মধ্যে সাউথ আফ্রিকার ভ্যারিয়েন্টও পাওয়া গেছে ৮৪ ভাগ।

এদিকে গবেষণায় দেখা যাচ্ছে যুক্তরাজ্য, সাউথ আফ্রিকা ও ব্রাজিলে শনাক্ত করোনার নতুন ধরন সবচেয়ে ভয়ংকর। এটির সংক্রমণ সক্ষমতা ও জটিলতা অনেক বেশি। এতে টিকার কার্যকারিতা নিয়ে প্রশ্ন উঠলেও বিশেষজ্ঞরা বলছেন, অক্সফোর্ডের টিকা সংক্রমণের জটিলতা ও মৃত্যুহার কমায়।

করোনার গতি-প্রকৃতি জানতে এ পর্যন্ত ১৮৫টি জেনোম সিকোয়েন্স করেছে চাইল্ড হেলথ রিসার্চ ফাউন্ডেশন। তারা জানাচ্ছে, গত বছরের ডিসেম্বরে যুক্তরাজ্যের ধরন, এ বছরের জানুয়ারিতে সাউথ আফ্রিকার ধরন শনাক্ত হয়।

সবশেষ মার্চে ২২ নমুনার জেনোম সিকোয়েন্স করে ১৯টিতে করোনার নতুন ধরন শনাক্ত হয়। এর মধ্যে ১৬টিই সাউথ আফ্রিকার ভ্যারিয়েন্ট। এই ধরন শনাক্ত হয়েছে ঢাকার বাইরেও।এদিকে, আইসিডিডিআরবির গবেষণাতেও সাউথ আফ্রিকার ধরন পাওয়া গেছে ৮১ভাগ।

সিএইচআরএফ-এর নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক সমীর কুমার সাহা বলছেন, সাউথ আফ্রিকার পাওয়া ধরনটি কিন্তু অনেক বেশি সংক্রমণ ঘটাচ্ছে এবং মৃত্যু ঝুঁকি বাড়াচ্ছে। এই বিষয়গুলোকে খেয়াল রেখে আমাদের স্বাস্থ্যিবিধ মেনে চলতে হবে।

দেশে গত এক সপ্তাহেই প্রায় ৫০ হাজার করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। মারা গেছে ৪শর বেশি। এই ভয়াবহতার জন্য নতুন ধরনের করোনা কতটা দায়ী, তা জানতে পরীক্ষা করা নমুনার কমপক্ষে ৫ ভাগের জেনোম সিকোয়েন্স করা জরুরি বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা।

এদিকে সাউথ আফ্রিকা ভ্যারিয়েন্টে করোনা টিকার কার্যকারিতা নিয়েও শুরু হয়েছে আলোচনা। চিকিৎসকেরা বলছেন, টিকা অবশ্যই নিতে হবে।এতে রোগের জটিলতা ও মৃত্যুঝুঁকি কমে। ভয়ের বিষয় হলো করোনার নতুন ধরন এরই মধ্যে ছড়িয়েছে একশোর বেশি দেশে।

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন
copyright © 2021 newsg24.com | A G-Series Company
Developed by Creativeers