রবিবার, ২০ জুন ২০২১, ৫ আষাঢ় ১৪২৮ , ৯ জিলকদ ১৪৪২

খেলা

আইপিএলের জৈব সুরক্ষাবলয় নিয়ে সন্তুষ্ট নয় ভারতীয় ক্রিকেটাররাই

ক্রীড়া ডেস্ক মে ৭, ২০২১, ১৪:৫৮:৪৭

  • ছবি: ইন্টারনেট

ক্রীড়া ডেস্ক  

আইপিএলে জৈব সুরক্ষাবলয় নড়বড়ে। ব্যাপারটি আগেই বলেছিলেন রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর অস্ট্রেলিয়ান লেগ স্পিনার অ্যাডাম জাম্পা। একই সঙ্গে এ ডানহাতি মনে করে দিয়েছিলেন, সংযুক্ত আরব আমিরাতে ২০২০ আইপিএল যে জৈব সুরক্ষাবলয়ে হয়েছিল, সেটি এবারের আইপিএলের জৈব সুরক্ষাবলয়ের চেয়ে শক্তিশালী ছিল। এবার আইপিএল স্থগিত হওয়ার পর  ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, দেশটির কিছু ক্রিকেটারও মনে করেন, গত বছর আরব আমিরাতের তুলনায় এবার নিজ দেশে আইপিএলে জৈব সুরক্ষাবলয় অতটা শক্তিশালী ছিল না।

ভারতে এবারের আইপিএল স্থগিত হওয়ার আগে চারটি ফ্র্যাঞ্চাইজির ক্রিকেটার, কোচিং স্টাফ মিলিয়ে অনেকেই করোনায় আক্রান্ত হন। যে কারণে অনেকেই অনুমান করছেন, আইপিএলে জৈব সুরক্ষাবলয়ে ফোকর ছিল 

ভারতের সংবাদ সংস্থা পিটিআই আইপিএলের কিছু ভারতীয় ক্রিকেটারের সঙ্গে কথা বলেছে জৈব সুরক্ষাবলয় নিয়ে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক খেলোয়াড় জানিয়েছেন, ‘বিসিসিআই এবং দলগুলো সর্বোচ্চ চেষ্টা করলেও জৈব সুরক্ষাবলয় আরব আমিরাতে বেশি শক্তিশালী ছিল। এখানে (ভারতে আইপিএল) দেখবেন অন্য জায়গার লোকেরাও যত্রতত্র আসা-যাওয়া করছে। অনেকে তো সুইমিংপুলও ব্যবহার করে। অনুশীলনের জায়গাও দূরে।’ 

ভারতের হয়ে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী শ্রীভত গোস্বামী এবার খেলছেন সানরাইজার্স হায়দরাবাদে। তাঁর মতে, খেলোয়াড় ও সাপোর্ট স্টাফদের কেউ জৈব সুরক্ষাবলয় ভাঙেনি, ‘জৈব সুরক্ষাবলয়ের ভেতরে আমাদের ভালোভাবে রাখা হয়েছে। খেলোয়াড় কিংবা স্টাফদের কেউ এটা ভাঙেনি। কিন্তু অস্বীকার করব না, একবার ভাইরাস ঢোকার পর সবাই ভীত হয়ে পড়ে। বিশেষ করে বিদেশি ক্রিকেটাররা। তখন আর কিছু করার থাকে না।’

ভারতে করোনার ভয়াবহতা বেড়েই চলছে। গতকাল দেশটিতে সংক্রমণের সংখ্যা ৪ লাখের বেশি। হাসপাতালগুলোয় পর্যাপ্ত শয্যা নেই। চলছে প্রকট অক্সিজেনের সংকট। বিদেশি ক্রিকেটাররা ভারতের এই পরিস্থিতি দেখে আরও বেশি আতঙ্কিত হয়ে পড়ছেন। 

নিউজজি/সিআর

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন
copyright © 2021 newsg24.com | A G-Series Company
Developed by Creativeers