সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১ আশ্বিন ১৪২৮ , ১৮ সফর ১৪৪৩

খেলা

ক্রিকেটকে মালিঙ্গার গুডবাই

স্পোর্টস ডেস্ক সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২১, ১৯:৩৬:০৭

264
  • লাসিথ মালিঙ্গা। ছবি-ইন্টারনেট

গতির সঙ্গে অদ্ভুত অ্যাকশনের বোলিংয়ে শুরুতেই ব্যাটসম্যানদের কাঁপন ধরিয়ে দিয়েছেন। ২০০৪ সালের জুলাইয়ে ডাম্বুলায় অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে অভিষিক্ত লংকান লাসিথ মালিঙ্গা বোলিংয়ে ভীতি ছড়িয়ে ১৬ বছর খেলেছেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট।

ফ্রাঞ্চাইজি ক্রিকেটের মোহে টেস্ট ক্যারিয়ার করেননি লম্বা। উইকেটের সেঞ্চুরি পূর্ণ করেই (৩০ টেস্টে ১০১ উইকেট) থেমেছে তার টেস্ট ক্যারিয়ার। ২০১০ সালে টেস্টকে গুডবাই জানিয়ে সাদা বলের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ক্যারিয়ার টেনে নিয়েছেন লম্বা সময়।

২০১৯ সালের ২৬ জুলাই প্রেমাদাসায় বাংলাদেশের বিপক্ষে ওয়ানডে ম্যাচে থেমেছে তার একদিবসীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। ২২৬ ম্যাচে ৩৩৮ উইকেট শিকারী মালিঙ্গা টি-২০ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বোলারদের মধ্যে সবার আগে পূর্ণ করেছেন উইকেটের সেঞ্চুরি।

২০২০ সালের ৬ মার্চ পাল্লেকেলেতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টি-২০ ম্যাচের পর আর নামতে পারেননি সংক্ষিপ্ত সংস্করণের ক্রিকেটে। ৮৪ টি-২০ আন্তর্জাতিক ম্যাচে ১০৭ উইকেটে বোলারদের এভারেস্টে পা রাখা মালিঙ্গা ফ্রাঞ্চাইজি ক্রিকেট চালিয়ে নিতে চেয়েছিলেন। ফ্রাঞ্চাইজি ক্রিকেটের এই ফেরিওয়ালার বিচরণ ছিল প্রতিটি বড় আসরে। আইপিএল, বিপিএল, বিগ ব্যাশ, পিএসএল, কাউন্টি ক্রিকেট-সব জায়গায় ছিল তার বিচরণ।

আইপিএলে ১২২ ম্যাচে ১৭০ উইকেটে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের একাধিক ট্রফি জয়ে অবদান রাখা মালিঙ্গা চলমান আইপিএলে এই দলটির রিটেইন ক্রিকেটারের লিস্টে ছিলেন। তবে ইনজুরির কারণে আইপিএলের প্রথম পর্যায়ের খেলা থেকে বিরত থেকে অবশিস্ট পর্বেও দেখা যাবে না মালিঙ্গাকে।

টেয়েন্টি-২০ ক্রিকেটে আর মাত্র ১০ উইকেট ক্যারিবিয়ান পেসার ডুয়াইন ব্রাভো (৪৯৮ ম্যাচে ৫৪০ উইকেট), দক্ষিণ আফ্রিকার লেগ স্পিনার ইমরান তাহির (৩৩৩ ম্যাচে ৪২০ উইকেট), ক্যারিবিয়ান স্পিনার সুনিল নারাইন (৩৭২ ম্যাচে ৪১১ উইকেট) এর পর চতুর্থ বোলার হিসেবে চারশ উইকেট ক্লাবের সদস্যপদ পেতেন। তা অসম্ভব মনে হয়নি।

তবে ৩৭ বছরে দাঁড়িয়ে ক্যারিয়ারকে আর লম্বা করতে চাইছেন না। ৩৪০ আন্তর্জাতিক ম্যাচে ৫৪৬ উইকেট শিকারি এই পেসার সংক্ষিপ্ত সংস্করণের ক্রিকেটে ২৯৫ ম্যাচে ৩৯০ উইকেটে থামলেন। এর মধ্য দিয়ে সব ধরনের ক্রিকেটকে গুডবাই জানিয়েছেন মালিঙ্গা।    

ক্রিকেট ক্যারিয়ারকে বিদায় জানিয়ে ক্রিকবাজকে বলেছেন- ‘আজ আমার জন্য বিশেষ একটি দিন। টি-২০ ক্যারিয়ার জুড়ে যারা আমাকে সমর্থন দিয়েছেন, তাদের সবাইকে ধন্যবাদ দিতে চাই। আজ আমি টি-২০ বোলিং থেকে ১০০% বিশ্রামে যাচ্ছি। শ্রীলংকা ক্রিকেট বোর্ড, মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স, মেলবোর্ন স্টারর্স, কেন্ট ক্রিকেট ক্লাব, রংপুর রাইডার্স, গায়ানা ওরিয়র্স, মারাঠা ওরিয়র্স এবং মন্ট্রিল টাইগার্সকে ধন্যবাদ দিতে চাই। এখন আমি তরুণ ক্রিকেটারদের মধ্যে যারা ফ্রাঞ্চাইজি ক্রিকেট এবং জাতীয় দলে খেলতে চায়, তাদের সঙ্গে আমার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে চাই।’

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন
        
copyright © 2021 newsg24.com | A G-Series Company
Developed by Creativeers