সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ২ কার্তিক ১৪২৮ , ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

খেলা

পাকিস্তান সিরিজের প্রস্তুতি এনসিএলে

স্পোর্টস রিপোর্টার সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২১, ১৮:৫৬:৩৫

324
  • হাবিবুল বাশার। ছবি-ইন্টারনেট

এ বছরের ২২ মার্চ থেকে জৈব সুরক্ষায় প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট জাতীয় ক্রিকেট লিগ (এনসিএল) শুরু করে তা সম্পন্ন করতে পারেনি বিসিবি। জৈব সুরক্ষার মধ্যেও করোনা ভাইরাস সংক্রমিত হওয়ায় দুই রাউন্ডের পর স্থগিত হয়ে গেছে বিসিবির ক্যালেন্ডারে নিয়মিত থাকা আসরটি।

২০২০-২১ মৌসুমে স্থগিত থাকা আসরটি আর সম্পন্ন করছে না বিসিবির টুর্নামেন্ট কমিটি।নতুন করে ২০২১-২২ মৌসুমের এনসিএল মাঠে গড়াতে প্রস্তুতি নিয়েছে টুর্নামেন্ট কমিটি। আগামী নভেম্বর থেকে আইসিসির দ্বিতীয় চক্রের টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ শুরু হবে বাংলাদেশের।

পাকিস্তান ক্রিকেট দলের বাংলাদেশ সফরে দুই টেস্ট-এর সিরিজ দিয়ে শুরু হবে বাংলাদেশের কঠিন মিশন। টেস্টে বাংলাদেশ দলের ব্যস্ততাকে সামনে রেখে ক্রিকেটারদের প্রস্তুতিতে গুরুত্ব দিতে অক্টোবরের তৃতীয় সপ্তাহ থেকে এনসিএল মাঠে গড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে টুর্নামেন্ট কমিটি।

এনসিএলকে সামনে রেখে ইতোমধ্যে নির্বাচকরা অংশগ্রহণকারী ৮টি দল নির্বাচন করেছে। ফিটনেস পরীক্ষায় উতরে যাবেন যারা, তারা চূড়ান্ত দলে পাবেন জায়গা। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণঝুঁকির কারণে এবার প্রতিটি দলের খেলোয়াড় সংখ্যা ১৬ জনে  উন্নীত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিসিবি। এমনটাই জানিয়েছেন নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমন- ‘এবার আমরা একটু সময় নিয়েই এনসিএল শুরু করতে যাচ্ছি। দলগুলোকে যথেষ্ট সময় দেয়া হচ্ছে। সাধারণত যখন এনসিএল শুরু করি, দলগুলো খুব একটা সময় পায় না। এবার প্রায় এক মাসের সময় পাচ্ছে। আপনারা জানেন যে, ২০-২২ জনের একটা টিম করে দেয়া হয়েছে। এখন ফিটনেস ট্রেইনিং চলছে। এক তারিখ থেকে ফিটনেস টেস্ট হবে। এর আগে ওরা ট্রেইনিংয়ের সুযোগ পায়নি। এবার সুযোগটা করে দেয়া হয়েছে। ফিটনেস টেস্টের পর আমরা ১৬ জনের দল করে হবে। সবসময় আমরা ১৪ জনের দল দিই। এবার করোনার জন্য দুইজনের বেশি দিচ্ছি।’

টি-২০ বিশ্বকাপ চলাকালে এনসিএল মাঠে গড়াবে বলে জাতীয় দলের সব খেলোয়াড়কে পাওয়া যাবে না এনসিএলে। তবে টেস্ট খেলোয়াড়ের স্টিকার লেগেছে যাদের গায়ে, তাদের অধিকাংশকে দেখা যাবে এনসিএলে। এমনটাই জানিয়েছেন হাবিবুল বাশার সুমন।

পাকিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজের প্রস্তুতির জন্য এবার এনসিএল আদর্শ মঞ্চ হবে বলে মনে করছেন হাবিবুল বাশার সুমন-‘বিশ্বকাপের পরপরই আমাদের কিছু টেস্ট ম্যাচ আছে। এটা কিন্তু খেলোয়াড়দের তৈরি করার জন্যে ভালো একটি সুযোগ। আমরা খুব একটা টেস্ট খেলার সুযোগ পাইনি। অনুশীলন ম্যাচ আর  প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচের মধ্যে তো পার্থক্য অবশ্যই আছে। পাকিস্তান সিরিজের আগের এনসিএলের মাধ্যমে পর্যাপ্ত প্রস্তুতি হবে বলে মনে করি।’ 

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন
        
copyright © 2021 newsg24.com | A G-Series Company
Developed by Creativeers