রবিবার, ৫ ডিসেম্বর ২০২১, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ , ২৮ রবিউস সানি ১৪৪৩

খেলা

স্কটল্যান্ডের কাছে হার মানতে পারছেন না পাপন

স্পোর্টস রিপোর্টার অক্টোবর ১৮, ২০২১, ২১:২৭:৫০

302
  • বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন এমপি। ছবি-ফাইল ফটো

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের ম্যাচ মানেই বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন এমপির উপস্থিতি। ম্যাচ শেষে মিডিয়ায় তার প্রতিক্রিয়া। দু্বাইয়ে আইপিএলের ফাইনাল দেখে মাস্কটে উড়ে গেছেন তিনি টি-২০ বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলের ম্যাচ দেখতে।

তবে হোমে অস্ট্রেলিয়া, নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে  টি-২০ সিরিজ জয়ে যে বাংলাদেশ দলকে দেখেছেন তিনি, টি-২০ বিশ্বকাপে গ্রুপ রাউন্ডের প্রথম ম্যাচে সেই বাংলাদেশ দলকে দেখতে পারেননি।

র‍্যাঙ্কিংয়ে যে দলটি ৯ ধাপ নিচে, সেই স্কটল্যান্ডের কাছে কেন ৬ রানে হেরে যাবে বাংলাদেশ ? তা মানতেই পারছেন না বিসিবি সভাপতি। ওমানের রাজধানী মাস্কটে টি-২০ বিশ্বকাপ কভার করতে যাওয়া গণমাধ্যমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে সে কথাই বলেছেন পাপন-কাল (রবিবার) তো আমাদের পুরো টিমই ছিল। সে জায়গাটায় আমরা এভাবে হেরে যাব, এমন কল্পনা... মানে চিন্তাতেও আসেনি। সত্যি কথা বলতে আমরা কখনো চিন্তাও করিনি যে স্কটল্যান্ডের সাথে আমরা হারতে পারি।

বাংলাদেশ দল হেরে গেলে মেজাজ বিগড়ে যায় বোর্ড সভাপতির, পরিবারের কেউ কাছে আসেন না তখন। নিজ মুখে একাধিকবার বলেছেন বিসিবি সভাপতি। অথচ স্কটল্যান্ডের কাছে বাংলাদেশ দলের হেরে যাওয়ার পরও মেজাজ হারাননি পাপন। বাংলাদেশ দলের এমন ছন্দপতনে টিম অ্যাপ্রোচকে দায়ী করেছেন বিসিবি সভাপতি- ক্রিকেটে এমনটা হতেই পারে। বিশেষ করে টি-টোয়েন্টিতে এটা হয়। কিন্তু আমার যে জিনিসটা খারাপ লেগেছে সেটা হলো টিম অ্যাপ্রোচ। 

দলের তিন সিনিয়র ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম ও মাহমুদউল্লাহ স্ট্রাইক রোটেড সেভাবে করতে পারেননি। ইনিংসের মাঝপথে বল অপচয় করেছেন এই তিন সিনিয়র। ৮৬ বলে করেছেন তারা তিনজন মিলে ৮১ রান। এই তিনজনের ব্যাটিং অ্যাপ্রোচে বাংলাদেশ দলে এই পরিণতি হয়েছে বলে মনে করছেন বিসিবি সভাপতি-দুটি উইকেট পড়ার পর সাকিব, মুশফিক, মাহমুদউল্লাহ যেভাবে ব্যাটিং করেছে, সেখানেই তো ম্যাচ হেরে গেছি আমরা। ওই সময় যেভাবে খেলা দরকার ছিল, ওইটা ওদের মধ্যে ছিল না।

বাংলাদেশ দলের মুখস্ত ব্যাটিং অর্ডার নিয়েও প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ বিসিবি সভাপতি-কাউকে তিন নম্বরে খেলাতেই হবে, কাউকে চার নম্বরে খেলাতেই হবে,  তো পরিস্থিতির উপর নির্ভর করে। যেভাবে আমরা ব্যাটিং করেছি, প্রথম ১৩-১৪ ওভার বলের চেয়ে রান কম করেছি। পরের ব্যাটসম্যানরা তো খেলার সুযোগই পাচ্ছে না। ওদের তখন অল আউট খেলা ছাড়া গতি নেই।

স্কটল্যান্ডের কাছে গ্রুপ রাউন্ডের প্রথম ম্যাচ হেরে এখন সুপার-১২ এর টিকিটটাই কঠিন হয়ে গেছে। ওমানকে হারাতে হবে, মেলাতে হবে সমীকরণ।

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন