রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ , ১৮ জিলকদ ১৪৪৫

খেলা

টাইব্রেকারে সিটিকে হারিয়ে সেমিফাইনালে রিয়াল মাদ্রিদ

ক্রীড়া ডেস্ক এপ্রিল ১৮, ২০২৪, ০৮:০৭:০৪

106
  • ছবি: ইন্টারনেট

শেষ আটের প্রথম লেগ ড্র হওয়ায় সেমিফাইনালে উঠার লড়াইয়ে ম্যানচেস্টার সিটি ও রিয়াল মাদ্রিদকে কোনভাবেই এগিয়ে রাখতে পারছিলেন না ফুটবলপ্রেমিরা। সবার নজর ছিল মাঠের লড়াইয়ে কে ভাল খেলে। তবে ইতিহাদ স্টেডিয়ামে বুধবার রাতে দু’দলই দুর্দান্ত ফুটবল উপহার দিয়েছে। যদিও শেষ পর্যন্ত টাইব্রেকার ভাগ্যে রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে পেরে উঠেনি সিটি। যে কারণে এবার চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ আটের লড়াই থেকেই বিদায় নিতে হয়েছে ইংলিশ জায়ান্টদের। 

বুধবার টাইব্রেকারে ম্যানচেস্টার সিটিকে ৪-৩ ব্যবধানে হারিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। যে জয়ে আবারও চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালে জায়গা করে নিয়েছে ১৪বারের ইউরোপীয় চ্যাম্পিয়নরা। আর গতবারের চ্যাম্পিয়নরা বিদায় নিল শেষ আট থেকেই। গত আসরে সিটির কাছে হেরেই সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নিয়েছিল রিয়াল মাদ্রিদ। এরআগে বার্নাব্যুর লড়াই দুই দল শেষ করেছিল ৩-৩ সমতায়। 

ম্যানচেস্টার সিটি বুধবার হেরেছে আসলে রিয়ালের রক্ষণের কাছে। ম্যাচের বেশির ভাগ সময় বলে দখল, বেশি আক্রমণ আর বেশি দাপট দেখালেও রিয়ালের রক্ষণ দেয়াল ভেদ করতে পর্যুদস্ত হতে হয়েছে সিটিকে। যে দেয়ালের সর্বশেষ রক্ষক ছিলেন গোলকিপার আন্দ্রে লুনিন। 

রিয়াল গোলকিপার টাইব্রেকারেই প্রতিহত করেছেন বের্নার্দো সিলভা ও মাতেও কোভাচিচের শট। বিপরীতে সিটি গোলকিপার এডারসন আটকাতে পেরেছেন শুধু লুকা মদরিচের শট। 

বুধবার রিয়ালকে ম্যাচের ১২তম মিনিটেই এগিয়ে দেন রদ্রিগো। জাতীয় দল সতীর্থ এদেরসন তার নেওয়া শট প্রথমে রুখে দিলেও ফিরতি যাত্রায় আবার পেয়ে জালে জড়াতে ভুল করেননি এই ব্রাজিলিয়ান।

গোল হজমের পর ম্যানচেস্টার সিটি অবশ্য আক্রমণের ধার বাড়ায়। আর্লিং হলান্ড অনেকটা আড়ালে পড়ে থাকলেও রিয়াল রক্ষণে বারবার ভীতি ছড়ান কেভিন ডি ব্রুইনা, ফিল ফোডেন, জ্যাক গ্রিলিশরা। শেষ পর্যন্ত তারা ফল পান ম্যাচের ৭৬তম মিনিটে। সে সময়  ডি ব্রুইনা গোল করে সিটিকে আনন্দে মাতান। নব্বই মিনিটের খেলা দুই লেগ মিলিয়ে ৪-৪ সমতায় শেষ হওয়ার পর অতিরিক্ত আধা ঘণ্টাও যায় একই ধারায়। এ সময়ে গোলের ভালো সুযোগটি ছিল রুডিগারের সামনে। জার্মান ডিফেন্ডার ১০৫ মিনিটে ৬ গজ বক্সের ভেতর নেওয়া শট বারের ওপর দিয়ে উড়িয়ে মারেন। যে কারণে ম্যাচ গড়াই টাইব্রেকারে।

টাইব্রেকারে সিটির হয়ে জালের দেখা পান হুলিয়ান আলভারেস, ফিল ফোডেন ও গোলরক্ষক এদেরসন। বের্নার্দো সিলভা দুর্বল শট করেন গোলরক্ষক বরাবর। মাতেও কোভাচিচের শটও ঠেকিয়ে দেন লুনিন।

এদিকে টাইব্রেকারে রিয়ালের লুকা মদ্রিচের নেওয়া প্রথম শট এডারসন ঠেকিয়ে দিলেও বাকি চার শটে গোল করেন জুড বেলিংহ্যাম, লুকাস ভাসকেস, নাচো ফের্নান্দেস ও আন্টোনিও রুডিগার। এই জার্মান ডিফেন্ডার বল জালে পাঠাতেই উৎসবে মেতে ওঠে সফরকারীরা। এ নিয়ে রেকর্ড ১৭তম বার চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালে উঠল রিয়াল মাদ্রিদ।

এবারের সেমিফাইনালে রিয়াল মাদ্রিদের প্রতিপক্ষ বায়ার্ন মিউনিখ। অপর সেমিফাইনালে পিএসজির প্রতিপক্ষ বরুসিয়া ডর্টমুন্ড।

নিউজজি/সিআর

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন