শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ , ৭ জিলহজ ১৪৪৫

খেলা

বাংলাদেশকে সেমিফাইনালে দেখতে চান হৃদয়

স্পোর্টস রিপোর্টার মে ২৬, ২০২৪, ১৮:০৮:১৭

227
  • তাওহিদ হৃদয়। ছবি-বিসিবির পাঠানো ভিডিও থেকে নেয়া

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে কখনো দ্বিতীয় পর্বের হার্ডল পেরুতে পারেনি বাংলাদেশ দল। আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলকে ঘিরে কোচ-অধিনায়ক-প্রধান নির্বাচকের টার্গেট দ্বিতীয় রাউন্ড।

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ৬ ইনিংসের মধ্যে ২ ইনিংসে ফিফটি করা দলের ইনফর্ম মিডল অর্ডার তাওহিদ হৃদয়ের স্বপ্নটা একটু বেশি।

বাংলাদেশ দলকে দেখতে চান তিনি সেমিফাইনালে-‘ আমি চাই দল যেন ভালো করে। আমার জায়গা থেকে অবশ্যই নিজের সেরাটা দিয়ে অবদান রাখার চেষ্টা করব। আমি চাই আমার দল কমপক্ষে সেমিফাইনাল খেলুক।’

চার বছর আগে দক্ষিণ আফ্রিকার মাটি থেকে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ ট্রফি জয়ী দলে প্রতিনিধিত্ব করেছেন তাওহিদ হৃদয়। বৈশ্বিক কোনো আসরে সেই প্রথম বাংলাদেশ পেয়েছে শিরোপার স্বাদ। সেই ট্রফি জয়ের সুখস্মৃতি থেকে টনিক নিয়ে দারুণ কিছু করতে চান তাওহিদ হৃদয়।

বিসিবিকে দেয়া ইন্টারভিউতে এমন লক্ষ্যের কথাই শুনিয়েছেন তিনি-‘চোখ খুলেও এখনো অনুভব করি যে কী হয়েছিল সেই বিশ্বকাপে। এখন আমাদের সময় এসেছে জাতীয় দলের হয়ে এশিয়া কাপ, বিশ্বকাপের মতো জায়গায় গিয়ে ভালো করা, কাপ নেওয়া। আমি শুধু একাই নই, , আমরা সবাই চাই। আমরা যদি আমাদের দিক থেকে ভালো করতে পারি, তাহলে বেশি দেরি নেই।’

আসন্ন টি-টেয়েন্টি বিশ্বকাপ দলের ৪ ক্রিকেটার প্রতিনিধিত্ব করেছেন ২০২০ সালে অনুষ্ঠিত অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে। এই চার ক্রিকেটারের সবাই খেলার চেহারা পরিবর্তন করতে পারেন বলে বিশ্বাস বদ্ধমূল হৃদয়ের-‘অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ দল এ যারা ছিল, শুধু অনূর্ধ্ব-১৯ নয়, এই দলে যারা আছে, মনে হয় যে প্রত্যেকেই গুরুত্বপূর্ণ। সবাই খুবই আক্রমণাত্মক। তামিম (তানজিদ হাসান), সাকিব (তানজিম হাসান), রিশাদ যারাই আছে, আমার মনে হয় ওরা এমন খেলোয়াড়, যেকোনো দিন একজন-দুজন খেলার চেহারাটা পরিবর্তন করে দিতে পারে। এদের মধ্যে ওই সামর্থ্য আছে। প্রত্যেকের মধ্যে একটা জেদ আছে। আমরা যেভাবে চ্যাম্পিয়ন হয়েছি, এখানেও তেমন কিছু করব।’

তবে বয়সভিত্তিক টুর্নামেন্টের সঙ্গে বড়দের বিশ্বকাপে পারফর্ম করা কঠিন। তা মনে করছেন হৃদয়-‘দুটিই তো দেশের জন্য খেলা, একটা বয়সভিত্তিক পর্যায়ে। আরেকটা এলিট স্টেজে। দুটিই গর্বের। একটা ক্যারিয়ার শুরুতে আসা অর্জন, সব সময়ের জন্য স্মরণীয়। জাতীয় দলে চ্যালেঞ্জ বেশি, প্রতিযোগিতা বেশি। এখানে সবকিছুই বেশি। যেখানে চ্যালেঞ্জ বেশি, সেখানেই ভালো লাগে।’

২০২৩ বিশ্বকাপে ৬ ইনিংসে ৩২.৮০ গড়ে করেছেন তাওহিদ হৃদয় ১৬৪ রান। যে ৬ ইনিংসের ৪টিতে ব্যাট করতে হয়েছে তাকে ৭ নম্বরে, একটি ৫ এবং অন্যটি ৪ নম্বরে। প্রিয় পজিশন ৪ নম্বরে নেমে শেষ ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৭৯ বলে ৭৪ রানের ইনিংসে চিনিয়েছেন নিজেকে।

ওই ম্যাচ থেকে প্রেরণা নিয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিজের অভিষেক আসর রাঙাতে চান হৃদয়-‘ ওই বিশ্বকাপে চেষ্টা করেছি। দল আমার কাছে যা চেয়েছে, তা দিয়ে কন্ট্রিবিউট করার জন্য। হ্যাঁ, কিছু ম্যাচ পারিনি। অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে আমি ৭৪ করেছিলাম। ভালো একটা অভিজ্ঞতা ছিল। দলের জন্য যেনো সব সময় অবদান রেখে যেতে পারি।’ 

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন