রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ১০ কার্তিক ১৪২৭ , ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

বিদেশ

যে পদ্ধতিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন

নিউজজি ডেস্ক ১৮ অক্টোবর , ২০২০, ০০:১৩:৪৩

  • যে পদ্ধতিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন

ঢাকা : বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাধর দেশ যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আর বাকি মাত্র দুই সপ্তাহ। যুক্তরাষ্ট্রতো বটেই বর্তমানে বিশ্ব রাজনীতিরও বড় আলোচনার বিষয় এই নির্বাচন। তবে দ্বিকক্ষবিশিষ্ট পার্লামেন্টের দেশ যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচন পদ্ধতি অন্য দেশ থেকে বেশ আলাদা। এখানে প্রার্থী নির্বাচনে যেমন বিশেষ কিছু ধাপ অতিক্রম করতে হয়, তেমনি মূল নির্বাচন পদ্ধতিও ভিন্ন ধরণের।

৫০ টি অঙ্গরাজ্য এবং ডিস্ট্রিক্ট অব কলাম্বিয়া নিয়ে আয়তনের দিক থেকে বিশ্বের ৪র্থ বৃহত্তম রাষ্ট্র ইউনাইটেড স্টেটস অব আমেরিকা। বিশাল এই দেশের শাসন পরিচালিত হয় দ্বি-কক্ষবিশিষ্ট পার্লামেন্টের অধীনে। প্রতি ৪ বছর পর অনুষ্ঠিত হয় প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাধর রাষ্ট্রটির নতুন সরকার নির্বাচনের সময় আসন্ন। আগামী ৩ নভেম্বর অনুষ্ঠিতব্য এই নির্বাচনকে ঘিরে প্রচার-প্রচারনায় ব্যস্ত প্রধান দুই প্রার্থী। রাষ্ট্রপতিশাসিত এই রাষ্ট্রের নির্বাচন পদ্ধতি অন্যান্য দেশ থেকে অনেকটাই আলাদা।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রথম ধাপ প্রার্থী বাছাই। ৫০ অঙ্গরাজ্যে পৃথকভাবে প্রাইমারি ও ককাস এবং সবশেষ দলীয় সম্মেলনের মধ্য দিয়ে নির্ধারিত হয় প্রেসিডেন্ট প্রার্থী। এরপর মূল নির্বাচনের লড়াই। অন্যান্য দেশের মতোই যুক্তরাষ্ট্রেও সাধারণ ভোটাররা তাদের পছন্দসই প্রার্থীর পক্ষে ভোট দেন। তবে তাদের সরাসরি ব্যালটে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন না। প্রেসিডেন্ট কে হবেন তা ঠিক হয় ইলেক্ট্রোরাল কলেজ অনুযায়ী।

জনসংখ্যার আনুপাতিক হারে যুক্তরাষ্ট্রের ৫০টি রাজ্য ও ডিস্ট্রিক্ট অব কলাম্বিয়া থেকে কংগ্রেসের সদস্য সংখ্যা নির্ধারণ করা হয়। আর, কোন রাজ্যে কতজন কংগ্রেস সদস্য আছেন তা থেকেই নির্ধারণ হয় ইলেক্ট্রোরাল কলেজ। এক্ষেত্রে হাউজ অব রিপ্রেজেন্টেটিভ ও সিনেট সদস্য উভয়ই বিবেচিত হন। প্রতিটি রাজ্যেই ভিন্ন ভিন্ন সংখ্যার ইলেক্ট্রোরাল কলেজ রয়েছে। এভাবে সবমিলিয়ে যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে ৫৩৮টি ইলেক্ট্রোরাল কলেজ রয়েছে।

প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে সব রাজ্যেই ভোটাররা তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। তবে যে রাজ্যে যে প্রার্থী সবচেয়ে বেশি ভোট পাবেন, তিনি ওই রাজ্যের সবকটি ইলেক্ট্রোরাল কলেজই পাবেন। ফলে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হলেও এগিয়ে থাকা প্রার্থীই পাবেন রাজ্যের সবকটি ইলেক্ট্রোরাল কলেজ। এরকম মোট ৫৩৮ টি ইলেক্ট্রোরাল কলেজের মধ্যে যদি কোন প্রার্থী ২৭০টি কিংবা বেশি ইলেক্ট্রোরাল কলেজ পান তবে তিনি প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হন।

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

        









copyright © 2020 newsg24.com | A G-Series Company
Developed by Creativeers