বুধবার, ২০ জানুয়ারি ২০২১, ৭ মাঘ ১৪২৭ , ৫ জুমাদাউস সানি ১৪৪২

সাহিত্য

শিশুসাহিত্যিক মোহাম্মদ নাসির আলীর জন্মবার্ষিকী আজ

নিউজজি ডেস্ক ১০ জানুয়ারি , ২০২১, ১৫:২৬:৩০

  • ছবি : সংগ্রহ

ঢাকা: আমাদের শিশুসাহিত্যের ভাণ্ডারকে ভরে তোলার জন্য এবং সাহিত্যের এ বিভাগটিকে একটি পরিপূর্ণ চেহারা দেওয়ার জন্য যেসব শিশুসাহিত্যিক আজীবন কাজ করে গেছেন মোহাম্মদ নাসির আলী ছিলেন তাদের অন্যতম। ‘লেবু মামার সপ্তকাণ্ড’, ‘বোকা বকাই’, ‘বোবারা সব কালা’, ‘তিমির পেটে কয়েক ঘণ্টা’, ‘সাতপাঁচ গল্প’, ‘সোনার চরকা’, ‘বুমেরাং’, ‘মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা’, ‘শাহীদিনের কাহিনী’ আর ‘যোগাযোগ’-এর মতো সুখপাঠ্য বই লিখে মোহাম্মদ নাসির আলী পাঠকদের কাছে শুধু প্রিয় লেখক হিসেবে সম্মান কুড়িয়ে নেননি, বাংলা শিশুসাহিত্যের সম্পদকেও সমৃদ্ধ করেছেন। তিনি জন্মগ্রহণ করেছিলেন তৎকালীন ঢাকা জেলার বিক্রমপুর পরগণার ধাইদা গ্রামে, ১৯১০ সালের ১০ জানুয়ারি। এ বছরের ১০ জানুয়ারি ছিল স্বনামধন্য এ লেখকের শতবার্ষিকী।

গত শতাব্দীর চল্লিশ দশক থেকে মৃত্যুর পূর্বক্ষণ পর্যন্ত ছোটদের জন্য লিখে গেছেন মোহাম্মদ নাসির আলী। তার ভাষা ছিল সহজ সরল। অগণিত মৌলিক লেখার সঙ্গে সঙ্গে বিশ্বসাহিত্যের বিখ্যাত গল্প, জীবনী ও কিশোর ক্ল্যাসিকও সহজ করে অনুবাদ করেছেন তিনি। এ কারণে তার লেখা প্রতিটি বই পাঠকের কাছে সমাদর পেয়েছে, সহজেই পাঠকের মন কেড়ে নিতে সক্ষম হয়েছে। ১৯৭৫ সালের ৩০ জানুয়ারি তিনি যখন মারা যান।

ছোটদের উপযোগী করে লেখাকে তার অন্যতম দায়িত্ব মনে করতেন মোহাম্মদ নাসির আলী। এজন্য নিরলস পরিশ্রম করে গেছেন তিনি। চাকরি করতেন সুপ্রিম কোর্টে। সেখান থেকে বের হয়ে সোজা চলে যেতেন তার প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান নওরোজ কিতাবিস্থানে। রাত ন’টার সময় বাসায় ফিরে এসে সাততাড়াতাড়ি কিছু খেয়ে লিখতে বসতেন। মাঝরাত পর্যন্ত একটানা লিখতেন তিনি। আর তার ফাঁকে ফাঁকে পড়তেন অন্যদের লেখা। বিশেষ করে বিশ্বসাহিত্যের কিশোর ক্ল্যাসিকগুলো খুবই প্রিয় ছিল তার।

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন
copyright © 2021 newsg24.com | A G-Series Company
Developed by Creativeers