সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ১৩ আষাঢ় ১৪২৯ , ২৭ জিলকদ ১৪৪৩

খেলা

সব সময় দলের অংশ হয়ে থাকতে চান বিজয়

স্পোর্টস রিপোর্টার জুন ২৩, ২০২২, ১৭:২৫:৫০

191
  • প্রিমিয়ার ডিভিশনে সেঞ্চুরির পর বিজয়। ছবি-ইন্টারনেট

প্রথম শ্রেনির ক্রিকেটে এনামুল হক বিজয়ের রেকর্ডটা তার দারুণ। ১০৫ ম্যাচে ৪৫.৩২ গড়ে ৭৪৭৯ রান। ২২ সেঞ্চুরির পাশে ৩৮ ফিফটি। আছে ডাবল সেঞ্চুরিও। তবে টেস্ট রেকর্ডটা তার মোটেও ভাল নয়।

৪ টেস্টে ৯.১২ গড়ে রান মাত্র ৭৩।২০১৩ সালে টেস্ট অভিষেক, পরের বছরে টেস্ট ক্যারিয়ার থেমেছে তার সেন্ট লুসিয়ায় ৯ এবং ০ রানের ইনিংসে। যেখানে থেমেছেন, ৯৩ মাস পর সেই ভেন্যুতেই টেস্টে প্রত্যাবর্তনের সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে বিজয়ের। 

সম্প্রতি ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগে করেছেন ইতিহাস রচনা। লিস্ট 'এ' মর্যাদার কোনো একটি ক্রিকেট আসরে ১৫ ম্যাচে ৮১.২৮ গড়ে, ৯৮.৬১ স্ট্রাইক রেটে, ৩ সেঞ্চুরি,৯ ফিফটিতে ১১৩৮ রানে করেছেন বিশ্বরেকর্ড। ৩৪ মাস পর জাতীয় দলে ফিরেছেন এই পারফরমেন্সেই।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে টি-২০ এবং ওয়ানডে সিরিজের দলে ছিলেন। ইয়াসির আলী রাব্বীর ইনজুরি এবং মুমিনুলের অব্যাহত অফ ফর্মের কারণে বিজয়কে ঢাকা থেকে জরুরীভাবে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে দ্বিতীয় টেস্টের দলে যোগ দিতে।

৯৩ মাস আগে যে ভেন্যুতে থেমেছে তার টেস্ট ক্যারিয়ার, সেই ভেন্যুতে প্রত্যাবর্তনের হাতছানি দিচ্ছে তার সামনে। দীর্ঘদিন পর টেস্ট খেলতে মুখিয়ে আছেন রিজয়। দীর্ঘদিন ধরে ঘরোয়া ক্রিকেটে ধারাবাহিক ব্যাটিংয়ে অভিজ্ঞতা সঞ্চয় করেছেন। প্রত্যাবর্তন টেস্টে তা কাজে লাগাতে চান বিজয়।

বিসিবিকে দেয়া ভিডিও বার্তায় বলেছেন তা-‘ আমি মনে করি এটাই আমার সাহস, এটাই শক্তি। নিজেকে একটা জায়গায় নিয়ে গেছি যে এই জিনিসগুলো দেখলে আমার বাড়তি প্রেরণা বলুন বা আত্মবিশ্বাস আসে। অবশ্যই এটা আমাকে সাহায্য করবে। আমার জন্য এটা বড় অভিজ্ঞতা যে এতদিন ধরে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট খেলেছি। প্রতিটি ক্রিকেটারের স্বপ্ন থাকে যে সে অভিজ্ঞ হবে এবং অভিজ্ঞতা কাজে লাগাবে। আমিও আশাবাদী যে অভিজ্ঞতা কাজে লাগবে এবং দেশের হয়ে অবদান রাখতে পারবো।’ 

সর্বশেষ তিন ইনিংসে হুড়মুড় করে ভেঙ্গে পড়েছে বাংলাদেশের টপ অর্ডার ব্যাটিং। মিরপুরে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ২ ইনিংসে ২৪ রানে ৫ উইকেট, ২৩ রানে ৪ উইকেটের পর এন্টিগায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৪৬ রানে হারিয়েছে বাংলাদেশ ১ম ইনিংসে ৬ উইকেট।

ইনিংসের শুরুতে ভেঙ্গ পড়া থামানোর চেষ্টা করবেন বলে দিয়েছেন কথা- ‘যদি সুযোগ পাই,  বাংলাদেশ দলকে ভালো একটা সংগ্রহ স্কোরবোর্ডে এনে দিতে নিজের সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করব। দ্রুত উইকেট পড়ে যাওয়াটা থামানো থেকে শুরু করে রানটাকে এগিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করব।’

প্রত্যাবর্তনের সুযোগ পেলে দলে নিয়মিত থাকতে সর্বাত্মক চেষ্টা করবেন বিজয়-‘কিছুদিন হলো ফলাফল আমাদের পক্ষে আসেনি, আসছে না কিছুদিন হলো। তবে আমি মনে করি, এই দলের বাংলাদেশকে অনেক দূর নিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা আছে । আমি চাইবো সবসময় এই দলের অংশ হয়ে থাকতে।’

পরিণত বিজয়কে দলে জায়গা পাকা করতে ধারাবাহিক পারফরমেন্সের বিকল্প যে নেই।

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন